কলকাতা, নিজস্ব প্রতিনিধিঃ- সান্যাল বাবুর ছোট সংসারে অর্থকড়ির কোনো সমস্যা নেই বললেই চলে।এক ছেলে অবনর্মাল,এক মেয়ে সদাই ব্যাস্ত থাকে তার প্রেমিকের সাথে।সান্যাল বাবুর গিন্নি মহিলা সমিতি নিয়ে ব্যস্ত থাকেন তাই ছেলেকে ঘরের এক কোণে পরে থাকতে হয়।নিয়ম মেনে ডাক্তার আসে ওষুধ দিয়ে যায়,কিন্তু ভালোবাসার অভাবে তার মনের কথা বলার চেষ্টা এক সময় বৃথা হয়ে থেকে যায়।টাকা থাকলেই শুধু প্রকৃত সেবা হয়না,যত্ন নেওয়া ও প্রয়োজন।এক সময় ব্যাস্ততার মধ্যে ডুবে থাকা সান্যাল বাবু ও তার পরিবার অনুধাবন করতে পারে কিন্তু ততোক্ষনে প্রায় সব শেষ হয়ে যায়।এইভাবে গল্প এগিয়ে চলে পরিচালক রাজকুমার দাস এর স্বল্প সময়ের ছবি “জার্নি অফ লাইফ”..।।২০১১ সালে নির্মিত ছবিটি সেই বছর অনুষ্ঠিত কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্ উৎসবে দেখানো হয়েছিল। পুনরায় ছবিটি আজ হাওড়া মন্দিরতলায় শিবপুর পাবলিক লাইব্রেরি র বিবেকানন্দ হেল এ ৩য় মডেল এন মুভি আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে মনোনীত হয়ে দেখানো হয়।”প্রিয় চিত্রসাথী” সিনে পত্রিকা নিবেদিত ছবির মুখ্য ভূমিকায় অভিনয় করেছেন পরিচালক স্বয়ং।পাশাপাশি বিনীতা, প্রশান্ত ঘোষ, গীতা মাইতি, রাজশ্রী,রামকৃষ্ণ মাইতি, রাজদীপ রায়,ও চন্দন ডোডো রায় ।১২ মিনিটের ছবির সম্পাদনা করেছে কুন্তল সিং।ছবিটি মুক্তি পিয়েছে ইতিমধ্যেই ইউটিউবে।

LEAVE A REPLY